আন্তর্জাতিক

যুদ্ধবিরতির ১০ দিন যেতে না যেতেই ইসরায়েলে দূতাবাস খুলল আমিরাত

ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠী হামাসের সঙ্গে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনীর যুদ্ধবিরতি শুরুর মাত্র ১০ দিনের মাথায় তেল আবিবে দূতাবাস খুলল সংযুক্ত আরব আমিরাত। গত রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরায়েলে দূতাবাস চালু করেছে দেশটি।

জানা যায়, গত ২৫ বছরের মধ্যে আরব বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করল আমিরাত। সবশেষ ১৯৯৬ সালে ইসরায়েলিদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পর্ক গড়েছিল জর্ডান।

এরপর গত দুই যুগ ধরে আর কোনো আরব দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্ক করেনি, যদিও তাদের অনেকে গোপনে বা পরোক্ষভাবে সম্পর্ক বজায় রেখেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

গত আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণ চুক্তি সই করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এরপর চলতি বছরের শুরুতেই ইসরায়েলি রাজধানী তেল আবিবে দূতাবাস স্থাপনের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দেয় আমিরাতের মন্ত্রিসভা।

গত ফেব্রুয়ারিতে ইসরায়েলে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রথম রাষ্ট্রদূত হিসেবে শপথ নেন মোহাম্মদ মাহমুদ আল-খাজা। আবুধাবির কাসর আল ওয়াতান প্রাসাদে তাকে শপথবাক্য পাঠ করান আমিরাতের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল-মাকতুম।

শপথ অনুষ্ঠানে রশিদ আল-মাকতুম রাষ্ট্রদূত খাজার উদ্দেশে বলেন, আপনাকে আমিরাত-ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক আরও গভীরতর করার লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। এমনভাবে কাজ হতে হবে যেন আমিরাত ও ইসরায়েলের মধ্যে শান্তি, সহাবস্থান ও ধৈর্য্যের সংস্কৃতি আরও বিকশিত হয়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button